৮ম শ্রেণির ৯ম সপ্তাহের বিজ্ঞান অ্যাসাইনমেন্ট উত্তর ২০২১

৮ম শ্রেণির ৯ম সপ্তাহের বিজ্ঞান অ্যাসাইনমেন্ট উত্তর ২০২১  ৮ম শ্রেণির এসাইনমেন্ট উত্তর  ২০২১ সালের এখানে দেয়া হয়েছে। ৮ম শ্রেণির ৯ম সপ্তাহের এসাইনমেন্ট বা সপ্তাহের নির্ধারিত কাজ বা প্রশ্ন ২৭ জুন ২০২১ তারিখে প্রকাশ করেছে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর (dshe.gov.bd)। এই এসাইনমেন্ট সম্পন্ন করে নিজ নিজ স্কুল শিক্ষকের নিকট জমা দিতে হবে। সব সপ্তাহের এসাইনমেন্টের সমাধান বা উত্তর এখানে দেয়া হয়েছে।

 

৮ম শ্রেণির ৯ম সপ্তাহের বিজ্ঞান অ্যাসাইনমেন্ট ২০২১

৮ম শ্রেণির ৯ম সপ্তাহের বিজ্ঞান অ্যাসাইনমেন্ট উত্তর ২০২১

নির্ধারিত কাজ -২

তৃতীয় অধ্যায়: ব্যাপন,অভিস্রবণ ও প্রস্বেদন

  • পাঠ ১-২: ব্যাপন
  • পাঠ -৩ : অভিস্রবণ
  • পাঠ ৪ : অভিস্রবণের গুরুত
  • পাঠ ৬: প্রস্বেদন
  • পাঠ ৭: প্রন্বেনের গুরুত

তােমার প্রতিদিনের পর্যবেক্ষণ থেকে ব্যাপন ও অভিস্রবণের দুটি করে ঘটনা উল্লেখ কর। ব্যাপন ও অভিস্রবণ প্রক্রিয়ার থেকে যে কোনাে একটির জন্য পরীক্ষণ সম্পন্ন করে সম্পূর্ণ প্রক্রিয়াটি ধারাবাহিকভাবে লিখ।

আমার বাবার পারফিউমের বােতলের মাথায় চাপ দিলে ফুস করে। শব্দ করে বাতাস ও তরল বের হ্য | ঘরের যে প্রান্তেই থাকি না কেন, কযেক। সেকেন্ডের মধ্যে সুঘ্রান আসে নাকের ভিতর । ভেবে দেখেছি পারফিউমের কণাগুলাে কত দ্রুত। আমার নাকে চলে আসে এটাই হলাে ব্যাপন।

আবার বাতাসের মধ্যে যদি কোনাে হালকা গ্যাসীয় বস্তু ছড়িয়ে দেই তাহলে তা বেশি ঘনত্ব থেকে কম ঘনত্বের দিকে ছুটে যাবে। এটাও ব্যাপনের জন্য হয়ে থাকে। কয়েকটি শুকনাে কিশমিশকে একটা কাপে পানি ঢেলে তাতে কয়েক ঘণ্টা ছেড়ে রাখলে পরে দেখা যাবে যে কিশমিশগুলাে ফুলে ঢােল। কারণ অভিস্রবণ প্রক্রিয়ায় কিশমিশের পাতলা পর্দা ভেদ করে ভেতরে পানি ঢুকে গেছে।

৮ম শ্রেণির ৯ম সপ্তাহের বিজ্ঞান অ্যাসাইনমেন্ট উত্তর

৮ম শ্রেণির ৯ম সপ্তাহের বিজ্ঞান অ্যাসাইনমেন্ট উত্তর ২০২১

উত্তর:

ক) ব্যাপন এর বৈশিষ্ট্যঃ

তরল বা বায়বীয় পদার্থের স্বতঃস্ফূর্তভাবে অধিক ঘনত্বের অঞ্চল থেকে কম ঘনত্বের অঞ্চলে যাওয়াকে বাপন বলে। কঠিন পদার্থের ব্যাপন ঘটে না। নিন্মে ব্যাপন এর কিছু বৈশিষ্ট্য দেওয়া হলােঃ

১. বস্তুর ভর ও তাপমাত্রা ব্যাপনের হার বস্তুর ভরের উপর নির্ভরশীল। ভর যত বেশি হবে বস্তুর ব্যাপনের হার তত কম হবে। অর্থাৎ, ব্যাপন হার বস্তুর ভরের (মােলার ভর) ব্যস্তানুপাতিক।

২.পদার্থের অণুর ঘনত্ব: যে পদার্থের ব্যাপন ঘটবে সে পদার্থের অণুর ঘনত্ব বেশি থাকলে ব্যাপন হার বেশি হবে, অণুর ঘনত্ব কম হলে ব্যাপন হার কম হবে।

৮ম শ্রেণির ৯ম সপ্তাহের বিজ্ঞান অ্যাসাইনমেন্ট উত্তর

 

৩. মাধ্যমের ঘনত্ব: যে মাধ্যমে ব্যাপন ঘটবে সে মাধ্যমের ঘনত্ব বেশি বলে ব্যাপন হার কম হবে; মাধ্যমের ঘনত্ব কম হলে ব্যাপন হার বেশি হবে।

 

৪. বায়ুমণ্ডলের চাপ: বায়ুমণ্ডলের চাপ বাড়লে ব্যাপন হার কমবে, বায়ুমণ্ডলের চাপ কম হলে ব্যাপন হার বাড়বে। ”

৫. ঘনত্বের তারতম্য: ঘনত্বের তারতম্য যত বেশি হয় তত তাড়াতাড়ি কণাগুলাে ছড়িয়ে পড়ে। সাধারণত একই সময়ে এবং একই স্থানে পরিবেশের তাপমাত্রা ও বায়ুমণ্ডলের চাপ সমান থাকে, সেক্ষেত্রে ব্যাপন পদার্থের ঘনত্ব এবং মাধ্যমের ঘনত্বই ব্যাপন নিযন্ত্রণকারী প্রভাবক হয়ে দাঁড়ায়। মাধ্যম ও ব্যাপন পদার্থ (যেমন-বেলুন ভর্তি বাতাস এবং চারপাশের বাতাস) যদি একই হয় তাহলে ততক্ষণ পর্যন্ত ব্যাপন ঘটবে যতক্ষণ পর্যন্ত দুটোর ঘনত্ব সমান না হয়।

 

খ) অভিস্রবণের বৈশিষ্ট্যঃ

(খ) অভিস্রবনণর বৈশিষ্ট্যঃ অভিস্রবণ বলতে দুটো ভিন্ন ঘনত্বের দ্রবণ একটি অর্ধভেদ্য পর্দা দিয়ে পাশাপাশি আলাদা করে রাখলে পর্দা ভেদ করে কম ঘন দ্রবণের থেকে অধিক ঘন দ্রবণের দিকে দ্রাবক অণু প্রবেশ করার প্রক্রিয়াকে বােঝায়। নিন্মে অভিস্রবণের কিছু বৈশিষ্ট্য দেওয়া হলােঃ

১.দুটো দ্রবণ এর ঘনত্ব সমান না হওয়া পর্যন্ত এই প্রক্রিয়া চলতে থাকবে।

২.অভিস্রবণ এক প্রকার ব্যাপন

৩. অভিস্রবণ কেবলমাত্র তরলের ক্ষেত্রে ঘটে। একে অন্যভাবে বলা যায়  কোনাে শক্তির প্রযােগ ছাড়াই তরলের বাস্তবিক চলাচল।অভিস্রবণকে দুই ভাগে ভাগ করা যায় অন্তঃঅভিস্রবণ, বহিঃঅভিস্রবণ 

৪. কোষের বাইরে অবস্থিত তরল পদার্থ যখন অর্ধভেদ্য পর্দা ভেদ করে  ভেতরে প্রবেশ করে তখন সেই প্রক্রিয়াকে অন্তঃঅভিস্রবণ বলে। কোষের ভেতর থেকে যখন তরল পদার্থ পর্দা ভেদ করে বাইরে বেরিযে যয এখন সেই প্রক্রিয়াকে বহিঃঅভিস্রবণ প্রক্রিয়া বলে।

৮ম শ্রেণির ৯ম সপ্তাহের বিজ্ঞান অ্যাসাইনমেন্ট উত্তর

গ) কাপন ও অভিস্রবণের পরীক্ষণ (ছালা পানিতে ভেজান, রান্লার গন্ধ ছড়িয়ে পড়া, ফুড কালার পানিতে ছড়িয়ে পড়া এবুপ বিষয় পর্যবেক্ষণ)

 

class 8 Science Assignment Answer 2021-9th week

(গ) ব্যাপন ও অভিস্রবণের পরীক্ষণঃ

ব্যাপন জিনিসটা আমাদের আশপাশে অহরহ ঘটে। সুক্ষ্ম পর্যায় থেকে শুরু করে বড় বড় কাজেও ব্যাপন দেখা যায়। যেমন ঘরের এক পাশে কেউ সুগন্ধি স্প্রে করলে সেটা মুহুর্তের মধ্যে সারা ঘরে ছড়িয়ে যায়। কেন? কারণ সুগন্ধিটা বােতলের ভেতর খুব চাপের মধ্যে থাকে। এতই চাপে থাকে যে সে গ্যাস থেকে তরল হয়ে যায়।

ওই তরল যখন আচমকা বের হওয়ার সুযােগ পায়, তখন তার মাথা খারাপ হয়ে যায়। সে যেখানেই  কম ঘনত্ব পাবে, সেখানেই ছুটে যাবে। আমাদের চারপাশে সাধারণত যে বাতাস থাকে, সেটা বেশ কম ঘনত্বের। আর তাই সুগন্ধির কণাগুলাে দ্রুত সব জায়গা দখল করে নেয়। এটা ব্যাপন প্রক্রিয়ার বেশ ভালাে উদাহরণ।

এক মাস নিতে এফ যে দু ল র ন দিনে ইয়ং। ছড়িয়ে যেতে থাকে। ততক্ষণ হতে থাকে, যত পুরে নিল হয়ে যাচ্ছে। সেই রঙিন পানি আবার যদি আরেকটি বড় পানিভর্তি এস

গলি তা হলে কী ঘটবে? ওই বড় গাসেরও সব পানি রঙিন হয়ে যাবে। কিন্তু পরেরবার দেখা যাবে বড় গ্লাসের পানির রং আগের চেয়ে হালকা হয়ে গেছে। কারণ পরের গ্লাসে পানির পরিমাণ বেশি। এতে বােঝা যায়, ব্যাপন প্রক্রিয়া ততক্ষণ চলতেই থাকবে, যতক্ষণ না দুটি তরলের ঘনত্ব সমান হচ্ছে।

মানে একটি পাত্রে রঙিন পানি ঢাললে রংগুলাে ততক্ষণ পর্যন্ত ছড়াবে, যতক্ষণ না সেটা গ্লাসের সব পানির অণুতে মিশে যায় মানে সব জায়গায় পানির ঘনত সমান না হওয়া পর্যন্ত রং ছড়াতেই থাকবে।

অভিস্রবণের বেলায়ও তাই। পানিতে ডােবানাে কিশমিশ ফুলে ঢােল হবে  ঠিকই, কিন্তু কিশমিশটা ফুলতে ফুলতে একেবারে ডিমের সমান বড় হয়ে যাবে না। কারণ একটা পর্যায়ে তার পানি শােষণ করা বন্ধ হয়ে যাবে। কোন পর্যায়ে যখন কিশমিশের ভেতরের ঘনত্ব আর বাইরের পানির ঘনত্ব একই হয়ে যাবে।

 

NB:শিক্ষার্থীদের জন্য আমাদের পরামর্শ, আমরা যেভাবে উত্তর/সমাধান দিব সেটা হুবহু না লিখে উত্তরটা নিজের ভাষায় লেখার চেষ্টা করতে । এতে করে শিক্ষার্থীরা অ্যাসাইনমেন্ট বা নির্ধারিত কাজে ভালো নম্বর অর্জন করতে পারবে ।

প্রতি সপ্তাহের অ্যাসাইনমেন্ট পাওয়ার জন্য kormojog.com এর ফেসবুক পেইজ কর্মযোগ লাইক এবং ফলো করে রাখ।

 

About Karmojog

Check Also

২০২১ সালের এইচএসসি পরিক্ষার্থীদের জন্য এ্যাসাইনমেন্ট

২০২১ সালের এইচএসসি পরিক্ষার্থীদের জন্য এ্যাসাইনমেন্ট

এইচএসসি ২০২১ পরীক্ষার্থীদের  অ্যাসাইনমেন্ট  মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের ওয়েবসাইট dshe.gov.bd এ প্রকাশ করা হয়েছে। …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *